মুলাদীতে এক ওয়ার্ডের ভোটার হয়ে অন্য ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ সোহাগ

Share to Social network.
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  আমি, আমার স্বামী বেল্লাল সরদার রহিমা তিনজন মিলে
    জানাযা করে তাকে মাটি দেই। করোনার কারণে আমমুলাদী প্রতিনিধিঃ
    মুলাদী উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ হাফিজুর
    রহমান সোহাগ এর বিরুদ্ধে অনিয়মের শেষ নেই। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,
    নাজিরপুর ইউনিয়নের উদ্যেক্তা না থাকার কারণে গ্রাম পুলিশ হাফিজুর রহমান
    সোহাগ ইউনিয়নের উদ্যেক্তার কাজ করে এবং ফেইজ বুকে আপলোড হয় সেই সভা
    সেখানে হাফিজুর রহমান সোহাগকে দেখতে পেয়ে, অন লাইন নতুন দিগন্ত
    সহ-সম্পাদক তাতে কমেট করেছে কেন তার জন্য তাকে অপমান করে। শুধু তাই নয়
    মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্ধ ২৫০০/-(পচিশ শত) টাকা
    বিষয়েও টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে, সবচেয়ে বড় হল নাজিরপুর ইউনিয়নের ৩নং
    ওয়ার্ডের ভোটার হাফিজুর রহমান সোহাগ, কিন্তু সে কর্মরত আছে ৪নং
    ওয়ার্র্ডের গ্রাম পুলিশের দায়িত্বে। বিষয়টি ৩নং ওয়ার্ডের ভোটার এবং ৪নং
    ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ এর কাছে মোটুফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমি ৩নং
    ওয়ার্ডের ভোটার এবং ৪নং ওয়ার্ডে গ্রাম পুলিশ হিসাবে কর্মরত আছে। অন্য
    বিষয়গুলো তিনি এরিয়ে যান। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শুভ্রা দাস
    স্যারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমি দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন
    করব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *