Share to Social network.
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ
বরিশাল জেলার মুলাদী উপজেলাধীন সফিপুর ইউনিয়নের বোয়ালিয়া গ্রামে ভাইয়ের ছেলের কাছে জমি বিক্রি করে প্রতারিত হয়ে নিঃশ^ মরুসা বেগম।
ঘটনাসূত্রে জানাযায়, বোয়ালিয়া গ্রামের বাসিন্দা আয়নাল চৌকিদার এর স্ত্রী মরুসা বেগম তার পিতা আব্দুল খালেক মৃধার মৃত্যুর পরে ওয়ারিশসুত্রে ৪ ভাই ও এক বোন পিতার সম্পত্তির মালিক হলেও বোনকে নানাভাবে পিতার সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করার পায়তারা করে আসছে আপন ভাই গফুর মৃধার ছেলে বাচ্চু মৃধা।

মরুসা বেগম প্রতিনিধিকে জানান- আমার ভাইয়ের ছেলে বাচ্চু মৃধা প্রতারনার মাধ্যমে আমার নিকট থেকে ২ শতাংশ জমি ৬০ (ষাট) হাজার টাকা মূল্যে দাম করে নগদ ২০ হাজার টাকা নিয়ে বাকী টাকা আত্মসাতের লক্ষে প্রতারনা শুরু করে, যা বাকী ৪০ হাজার টাকা অদ্যাবধি পর্যন্ত পরিশোধ করে নাই। এছাড়া আমার অজ্ঞতার সুযোগ নিয়ে ২ টি অলিলিখিত (সাদা) নন জুডিশিয়াল ষ্টাম্পে আমার টিপ সই নেয়। সম্প্রতি জানতে পারলাম যে, উক্ত প্রতারক আমার নিকট থেকে ২ শতাংশ নয়, বরং প্রতারনার মাধ্যমে ১২ শতাংশ জমি কবলা নিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিদের বলিলে উক্ত আমার ভাই গফুর মৃধা ও তার ছেলে বাচ্চু মৃধা ১০ শতাংশ জমি ও ২ টি ষ্টাম্প ফেরৎ না দিয়ে বরং এটা নিয়ে বাড়াবাড়ী না করতে হুমকী দেয়। এসময় আমার অন্য ভাই লাল মিয়া মৃধা ও ফরিদ মৃধা আমাকে শারিরীক নির্যাতন থেকে রক্ষা করে।

উল্লেখিত ঘটনা সম্পর্কে অভিযুক্ত ভাইয়ের ছেলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার ব্যবহৃত নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। লাল মিয়া মৃধা ঘটনাটি সত্য বলে প্রতিনিধিকে জানান ।

উপরোক্ত ঘটনার সুবিচার এবং মরুসা বেগমের ১০ শতাংশ জমি এবং বিক্রয় করা ২ শতাংশ জমির বাকী ৪০ হাজার টাকা আদায়ে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছেন ভূক্তভোগী মরুসা বেগম।