অ্যাপেই নারী ও শিশু নির্যাতনের অভিযোগ করা যাবে

0
55

ডেক্স রিপোর্টঃ-এখন থেকে সরাসরি থানায় না গিয়েও অভিযোগ দায়ের করতে পারবেন নির্যাতনের শিকার নারী ও শিশুরা। আর এ কাজে সহায়তা করবে ওয়েব বেইজড অ্যাপ্লিকেশন ‘ম্যানেজিং ভায়োলেন্স অ্যাগেইনস্ট উইমেন অ্যান্ড চিলড্রেন’। ইন্টারনেট সংযোগ থাকলে এই অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করা যাবে। বুধবার বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের আইসিটি বিভাগের ইনফো সরকার-২ প্রকল্প আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ অ্যাপ্লিকেশনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। (প্রিয় টেক) এখন থেকে সরাসরি থানায় না গিয়েও অভিযোগ দায়ের করতে পারবেন নির্যাতনের শিকার নারী ও শিশুরা। আর এ কাজে সহায়তা করবে ওয়েব বেইজড অ্যাপ্লিকেশন ‘ম্যানেজিং ভায়োলেন্স অ্যাগেইনস্ট উইমেন অ্যান্ড চিলড্রেন’। ইন্টারনেট সংযোগ থাকলে এই অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করা যাবে। বুধবার বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের আইসিটি বিভাগের ইনফো সরকার-২ প্রকল্প আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ অ্যাপ্লিকেশনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহারে সহায়তা করবেন মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মহিলা-বিষয়ক অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। আজ আইসিটি বিভাগের কর্মকর্তারা অ্যাপ্লিকেশনের (www.vawcms.gov.bd) একটি সিডি অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের হাতে হস্তান্তর করেন।

আগারগাঁওয়ে আইসিটি টাওয়ারে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আলোচকেরা জানান, স্মার্টফোনের মাধ্যমে অনলাইনে অভিযোগ জানানোর পাশাপাশি ইউনিয়ন তথ্যকেন্দ্র, সিটিজেন কর্নার ও মহিলা-বিষয়ক অধিদপ্তরের কার্যালয়ে গিয়েও নির্যাতনের শিকার ব্যক্তিরা এটি ব্যবহার করতে পারবেন। ৫ বা ১০ বছর আগের অভিযোগ, অভিযোগ দায়েরের পর কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল, তাও দ্রুত জানা যাবে। অনেকেই নির্যাতনের শিকার হলেও থানায় যেতে চান না নানা ধরনের বিড়ম্বনার কারণে। এখন আর সরাসরি থানায় যাওয়ার দরকার হবে না।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মহিলা ও শিশু-বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেন, বর্তমান প্রেক্ষাপটে এ অ্যাপ্লিকেশনটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। সভাপতির বক্তব্যে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, এ অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে আলাদা ফরম ডাউনলোড করার দরকার নেই। অভিযোগ করার পর তা চলে যাবে কাছের মহিলা-বিষয়ক অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের কাছে।

বাংলাদেশী বহুজাতিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান রিভ সিস্টেমস এই ওয়েব অ্যাপ্লিকেশানটি তৈরি করেছে। অনুষ্ঠানে রিভ সিস্টেমসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আজমত ইকবাল এই আপ্লিকেশনের ব্যবহারবিধি বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, “আমরা যখন এই প্রোজেক্টের কাজের দায়িত্ব পাই তখন থেকেই এটাকে আমরা আমাদের নিজেদের একটি প্রজেক্ট হিসেবেই দেখতে শুরু করি, কোনো ব্যবসায়িক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে নয়।” এছাড়াও রিভের পক্ষ থেকে হেড অব সেলস রায়হান হোসেন এবং অন্যন্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের এ অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দিতে আইসিটি বিভাগকে আহ্বান জানান মহিলা ও শিশু-বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম এবং মহিলা-বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সাহিন আহমেদ চৌধুরী। অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর শিকদার, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক এস এম আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ আলোচনায় অংশ নেন

LEAVE A REPLY