আবহাওয়াজনিত দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ষষ্ঠ

0
157

১৯৯৬ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত গত ২০ বছরে আবহাওয়াজনিত দুর্যোগে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ষষ্ঠ। জার্মানিভিত্তিক পরিবেশবাদী সংস্থা জার্মানওয়াচ গত ২০ বছরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে খরা, বন্যা, ঘূর্ণিঝড়ের মতো দুর্যোগে তুলনামূলক ক্ষয়ক্ষতির চিত্র তুলে ধরে ‘গ্লোবাল ক্লাইমেট রিস্ক ইনডেক্স’ বা সিআরআই তৈরি করেছে। প্রাণহানি ও সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি বিবেচনায় এই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থানের বিষয়টি উঠে এসেছে।

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে প্রাকৃতিক দুর্যোগে বার্ষিক গড় মৃত্যু, প্রতি এক লাখ অধিবাসীর বিপরীতে মৃতের সংখ্যা, ক্রয়ক্ষমতার সমতা (পিপিপি) এবং জিডিপির ক্ষতি হিসাব করে প্রতিবছর সিআরআই ইনডেক্স তৈরি করে জার্মানওয়াচ। এর অংশ হিসেবে সংস্থাটি প্রতিবছরই ‘গত ২০ বছরের জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিগ্রস্ত দেশ’ এবং ‘গত এক বছরের জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিগ্রস্ত দেশ’ নামে দুটি পৃথক তালিকা তৈরি করে।

জার্মানওয়াচের রিপোর্টে ১৯৯৬ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে বাংলাদেশে ১৮৫টি আবহাওয়াজনিত দুর্যোগের কথা বলা হয়েছে। এ সব দুর্যোগের প্রতিটিতে গড়ে ৬৭৯ জনেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। তাদের হিসাবে এ সব ঘটনায় এক লাখ ২৫ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণ গেছে।

ছবি: সংগৃহীত 

আবহাওয়াজনিত দুর্যোগে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় মধ্য আমেরিকার দেশ হন্ডুরাস রয়েছে এক নম্বরে। এর পর রয়েছে মিয়ানমার, হাইতি ও নিকারাগুয়ার নাম। তালিকায় ষষ্ঠ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ।

এশিয়ার ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর মধ্যে মিয়ানমার ও ফিলিপাইনের পরেই তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। আর বাংলাদেশের পর রয়েছে পাকিস্তান, ভিয়েতনাম ও থাইল্যান্ড।

জার্মানওয়াচের তৈরি তালিকা অনুযায়ী, গত ২০ বছরে বাংলাদেশ তার মোট দেশজ উৎপাদন– জিডিপি’র ০.৭৩২৪ শতাংশ হারিয়েছে শুধুমাত্র প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে।

গ্লোবাল ক্লাইমেট রিস্ক ইনডেক্স-২০১৭ এর হিসাব অনুযায়ী, গত ২০ বছরে পৃথিবীতে প্রায় ১১ হাজার জলবায়ু পরিবর্তনে সৃষ্ট দুর্যোগ হয়েছে, যা থেকে প্রাণ হারিয়েছেন পাঁচ লাখ ২৮ হাজারের বেশি মানুষ। এ সব দুর্যোগে তিন ট্রিলিয়ন ডলারের বেশি আর্থিক ক্ষতি হয়েছে।

জার্মানওয়াচের প্রতিবেদনে বলা হয়, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ধনী দেশগুলোর চেয়ে দরিদ্র দেশগুলো সবচেয়ে বেশি ক্ষতির শিকার হয়।

LEAVE A REPLY