শাবিপ্রবিতে ছাত্রীকে হয়রানির অভিযোগ

0
6

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) নৃবিজ্ঞান বিভাগের এক ছাত্রীকে র‌্যাগিং ও হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে একই বিভাগের তিন শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে।

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মো. জহির উদ্দিন আহমেদ বরারব লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী প্রথম বর্ষের ছাত্রী।

অভিযুক্তরা হলেন নৃবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষ দ্বিতীয় সেমিস্টারের রিয়াদ, আদনান আহমেদ ও মোহাম্মদ হাফিজ।

অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা আছে, ‘গত ১১ জুলাই পড়ালেখার সহযোগিতার কথা বলে রিয়াদ, আদনান আহমেদ ও মোহাম্মদ হাফিজ আমাকে শহীদ মিনারের নিচে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে গিয়ে আমাকে মানসিকভাবে চাপ সৃষ্টি করে। পরবর্তীতে মোবাইল ফোনে বিভিন্ন আলাপ করে আমাকে মানসিকভাবে নির্যাতন করে। এখন আমাকে অনবরত উত্ত্যক্ত ও ভয়ভীতি দেখিয়ে যাচ্ছে।’

অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়, ঘটনার একপর্যায়ে মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে অজ্ঞান হয়ে গেলে বন্ধুরা ওই ছাত্রীকে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্রী অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার ও শাস্তি দাবি করেন।

এ বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে অভিযুক্ত শিক্ষার্থী আদনানের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। এদিকে রিয়াদ ও হাফিজ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘এগুলো ষড়যন্ত্র।’

নৃবিজ্ঞান বিভাগের প্রধান অধ্যাপক এ কে এম মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘অভিযোগ পেয়ে দুই সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।’ তাদেরকে অতিদ্রুত কাজ করার জন্য বলা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে শাবিপ্রবি প্রক্টর মো. জহির উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘অন্যায় আচরণের প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী অভিযোগ করেছে। বিষয়টির খোঁজখবর নিচ্ছি। বিশ্ববিদ্যালয় বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

LEAVE A REPLY