ধর্ষণ মামলায় রাম রহিমকে ১০ বছরের জেল

0
52
ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত ভারতের বিতর্কিত স্বঘোষিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিম সিংয়ের বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা করেছে আদালত। ধর্ষণের অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ হওয়ায় ১০ বছরের জেল দিয়েছে বিশেষ সিবিআই আদালত। সোমবার বিকেলে এই রায় ঘোষণা করা হয়।
রোথাকের সুনারিয়া জেলে এই বিশেষ আদলত সোমবার শুরু হয় যেখানে আগে থেকেই ডেরা প্রধান রাম রহিমকে কয়েদ করে রাখা হয়েছে।
এর আগে গত শুক্রবার ধর্ষণ মামলায় রাম রহিমের অপরাধ প্রমাণিত হলেও সেদিন রায় ঘোষণা থেকে বিরত থাকে আদালত। শুক্রবারের রায়ের পর রাম ভক্তরা ভারতের হরিয়ানা ও পঞ্জাব রাজ্যে ব্যাপক সহিংসতা চালায়। নৈরাজ্য ও সহিংসতায় সেসময় ভারতে কমপক্ষে ৩৫ জন নিহত ও কয়েকশ মানুষ আহত হন।
ঐতিহাসিক এই রায়কে কেন্দ্র করে ফের ব্যাপক সহিংসতা হতে পারে, আশঙ্কায় রয়েছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ফলে সহিংসতা এড়াতে রাম রহিমের পরিচালিত শতাধিক ডেরা থেকে তার ভক্তদের উচ্ছেদ করা হয়েছে।
কয়েকটি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা যাচ্ছে, যে শহরে রাম রহিমের বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা হবে, সেই রোহতাক শহরে নেয়া হয়েছে কয়েকস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা, এমনকি সেখানে মোতায়েন থাকবে সেনাবাহিনীর বিশেষ টিম। এর আগে,আদালত রাম রহিমকে দোষী সাব্যস্ত করায় শুক্রবার দেশটির বিভিন্ন রাজ্যে, বিশেষ করে হরিয়ানার পাঁচকুলায় তাণ্ডব চালায় রাম রহিমের ভক্তরা। সেসময় নিহত হয় কমপক্ষে ৩৬ জন।
জানা গেছে, সোমবারের এ রায় ঘোষণার সময় রাম রহিমকে আদালতে হাজির না করে রোহতাকের কারাগারেই ধর্ষণ মামলার রায় ঘোষণা করা হবে। রোহতাক রেঞ্জের আইজিপি এ. এস ভির্ক জানান, ডেরা প্রধানের নিরাপত্তার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। সোমবার সিবিআই’র বিশেষ আদালতের বিচারকরা বিমানে করে পাঁচকুলা থেকে রোহতাক এসে পৌঁছাবেন। আনুষ্ঠানিকভাবে রায় ঘোষণার সময় জানানো হয়নি। আমরা আশা করছি আড়াইটার সময় রায় ঘোষণা করা হবে। টাইমস অব ইন্ডিয়া।
ইত্তেফাক/ রেজা

LEAVE A REPLY