উত্তর কোরিয়া পরিস্থিতি নিয়ে জাতিসংঘ মহাসচিব -সবচেয়ে ভয়ানক সংকটে বিশ্ব

0
68

একের পর এক পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে উত্তর কোরিয়া। এ থেকে তাদের রুখতে সামরিক পদক্ষেপ নেওয়ার হুমকি পর্যন্ত দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এই অবস্থাকে সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে ভয়ানক বৈশ্বিক সংকট হিসেবে অভিহিত করলেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। বলেছেন, বিষয়টি নিয়ে তিনি গভীর উদ্বিগ্ন। চীন ও রাশিয়ার বিরোধিতা সত্ত্বেও পিয়ংইয়ংয়ের ওপর কঠোর অবরোধ আরোপে আজ সোমবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ভোটাভুটির প্রস্তাব দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এমন প্রেক্ষাপটে ফ্রান্সের সাপ্তাহিক পত্রিকা লো জুর্নাল দু দিমঁশকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আন্তোনিও গুতেরেস তাঁর উদ্বেগের কথা জানালেন। গতকাল রোববার প্রকাশিত হয়েছে তাঁর সাক্ষাৎকারটি।

এদিকে উত্তর কোরিয়াকে আলোচনার টেবিলে আনতে নতুন করে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রস্তাবের সঙ্গে সহমত পোষণ করার কথা গতকাল জানিয়েছেন জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল।

সাক্ষাৎকারে জাতিসংঘ মহাসচিব বলেন, এখন পর্যন্ত হওয়া যুদ্ধগুলো অনেক ভাবনাচিন্তার পরই সংঘটিত হয়েছে। কিন্তু এমনও অনেক সংঘাত রয়েছে যেগুলো শুরু হয়েছে কাণ্ডজ্ঞানহীন কর্মকাণ্ডের দরুন। উত্তর কোরিয়ার দিকে ইঙ্গিত করেই তিনি এসব কথা বলেন।

গুতেরেস বলেন, গত কয়েক বছরে বিশ্বকে যেসব সংকট মোকাবিলা করতে হয়েছে তার মধ্যে এটাই সবচেয়ে মারাত্মক। এখন উত্তর কোরিয়াকে তাদের পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি বন্ধ করতে এবং নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাব মানতে  হবে। তিনি আরও বলেন, ‘নিরাপত্তা পরিষদে আমাদের যেকোনো মূল্যে ঐকবদ্ধ থাকতে হবে। কূটনৈতিক উদ্যোগ সফল করার এটাই পথ।’

ওয়াশিংটন উত্তর কোরিয়ার তেল ও বস্ত্র খাতের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের আহ্বান জানিয়ে জাতিসংঘে একটি খসড়া প্রস্তাব জমা দিয়েছে। এ ছাড়া কিম জং-উনের সম্পদ জব্দের প্রস্তাব দিয়েছে।

এদিকে জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল গতকাল বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচি বন্ধে কূটনৈতিক চাপ প্রয়োগে রাজি আছেন তিনি। পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে নতুন করে কঠোর অবরোধ আরোপে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ভোটাভুটির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাবের পরপরই ম্যার্কেল তাঁর অবস্থানের কথা জানালেন।

ম্যার্কেল বলেন, উত্তর কোরিয়া সংকট নিয়ে গত সপ্তাহে ফ্রান্স, যুক্তরাষ্ট্র, চীন, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানের নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। আজ তাঁর এ বিষয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে আলাপের কথা রয়েছে।

এদিকে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন তাঁদের ষষ্ঠ ও সবচেয়ে বড় পরমাণু পরীক্ষার ‘নিখুঁত সাফল্যের’ প্রশংসা করেছেন বলে গতকাল দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে।

ref- prothom alo

LEAVE A REPLY