দিল্লিতে এবার ৮ মাসের শিশুকে ধর্ষণ

0
85

দিল্লিতে এবার আট মাস বয়সী এক শিশু নিজের বাড়িতেই ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এএফপির খবরে জানানো হয়, শিশুটি এখন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছে।

গত রোববার কাজ থেকে বাড়ি ফিরে বাবা-মা দুজনেই দেখেন, শিশুটির বিছানায় অনেক রক্ত। সন্তানকে তাঁরা দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যান। তিন ঘণ্টা ধরে তার অস্ত্রোপচার চলে।

পিটিআই জানায়, এ ঘটনায় শিশুটির আত্মীয়–সম্পর্কিত ২৭ বছর বয়সী এক ভাইকে গ্রেপ্তার করেছে। শিশুর সুরক্ষায় যৌন নিরোধক আইনে এই তরুণ দোষী সাব্যস্ত হলে তাঁর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে।

দিল্লি কমিশন ফর উইমেনের প্রধান সোয়াতি মালিওয়াল শিশুটিকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান। তিনি তাঁর টুইটার অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, ‘জঘন্যতম ঘটনা ঘটল। রাজধানীতে আট মাসের এক শিশু নৃশংসভাবে ধর্ষণের শিকার হয়ে হাসপাতালে প্রাণ নিয়ে লড়ছে।’

শিশু অধিকারবিষয়ক জাতিসংঘের একটি কমিটি ২০১৪ সালে বলেছিল, ভারতে ধর্ষণের শিকার প্রতি তিনজনের মধ্যে একজন শিশু। এবং কমিটি শিশুদের ধর্ষণের ঘটনা ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ার বিষয়ে সতর্কতা প্রকাশ করেছিল।

ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর সর্বশেষ হিসাবে দেখা যায়, ২০১৫ সালে ভারতে প্রায় ১১ হাজার শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সেখানে বলা হয়, শুধু দিল্লিতে প্রতিদিন গড়ে তিনটি শিশু ধর্ষণের শিকার হয়।

২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর বন্ধুর সঙ্গে সিনেমা দেখে বাড়ি ফেরার পথে চলন্ত বাসে গণধর্ষণের শিকার হন ২৩ বছরের প্যারামেডিকেল ছাত্রী ‘নির্ভয়া’। গণধর্ষণের পরও চলে অকথ্য শারীরিক নির্যাতন। এরপর নির্ভয়া ও তাঁর বন্ধুকে চলন্ত বাস থেকে রাস্তায় ছুড়ে ফেলা দেওয়া হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। অবস্থায় উন্নতি না হওয়া নির্ভয়াকে সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়। সেখানেই হাসপাতালে মারা যান তিনি। এই ঘটনার পর দেশ-বিদেশে প্রতিবাদের ঝড় বয়ে যায়।

LEAVE A REPLY