যুক্তরাজ্যের বিরুদ্ধে শিগগিরই কঠোর সিদ্ধান্ত: লাভরভ

0
56

যুক্তরাজ্য থেকে ২৩ জন রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে পাল্টা জবাব দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে মস্কো। শিগগিরই লন্ডনকে এ ব্যাপারে কড়া জবাব দেবে ক্রেমলিন। বৃহস্পতিবার ‘রাশিয়া সম্ভাবনার দেশ’ শীর্ষক ফোরামে দেওয়া বক্তৃতায় রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেরগেই লাভরভ এ কথা বলেন।

যুক্তরাজ্য থেকে রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করা হলে মস্কোর জবাব কী হবে—সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে লাভরভ বলেন, ‘আপনাদের নিশ্চিত করে বলতে পারি, জবাব শিগগিরই দেওয়া হবে।’
লাভরোভ বলেন, ‘আমাদের জবাব আনুষ্ঠানিকভাবে আমাদের যুক্তরাজ্যের সহকর্মীদের কাছে পৌঁছে দেব।’
৪ মার্চ যুক্তরাজ্যের সলসবারি শহরের একটি বিপণিকেন্দ্রে বাইরে বেঞ্চিতে সেরগেই স্ক্রিপাল (৬৬) ও তাঁর মেয়ে ইউলিয়া স্ক্রিপালকে (৩৩) অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। পরে জানা যায়, তাঁদের দুজনের ওপর নার্ভ এজেন্ট (বিষাক্ত রাসায়নিক গ্যাস) প্রয়োগ করা হয়েছিল।
সেরগেই স্ক্রিপাল একসময় রাশিয়ার সামরিক গোয়েন্দা সংস্থার কর্নেল ছিলেন। ২০০৬ সালে তাঁর বিরুদ্ধে বিশ্বাসঘাতকতার অভিযোগ ওঠে। রাশিয়ায় তাঁর ১৩ বছরের কারাদণ্ড হয়েছিল। এরপর ২০১০ সালে ১০ জন মার্কিন গুপ্তচরের বিনিময়ে তিনি ছাড়া পান। ওই বছরই সেরগেই যুক্তরাজ্যে আশ্রয় নেন।
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে এ ঘটনাকে যুক্তরাজ্যের ভূখণ্ডে বেআইনিভাবে শক্তি প্রয়োগের অভিযোগ তুলেছে রাশিয়ার বিরুদ্ধে।
সলসবারিতে সাবেক রুশ গোয়েন্দা কর্মকর্তা সের্গেই স্ক্রিপাল (৬৬) ও তাঁর মেয়ে ইউলিয়ার স্ক্রিপালের (৩৩) ওপর রাশিয়ার তৈরি নার্ভ এজেন্ট ব্যবহারের বিষয়ে রাশিয়ার কোনো ব্যাখ্যা না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে যুক্তরাজ্য।
এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয় বলে রাশিয়া জানিয়ে আসছে এবং শিগগিরই যুক্তরাজ্যের বিরুদ্ধে কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়ে আসছে মস্কো। সূত্র: ইতার তাস

LEAVE A REPLY