দুলার হাট থানার আহম্মদপুরে’র নিখোঁজ ২৪ জেলের ২জন ফিরলেও খোঁজ মিলেনি ২২জনের!

0
30
এস রহমান সোহেল,ভোলা জেলা প্রতিনিধিঃঃ
৬দিনে ও খোঁজ মিলেনি দুলার হাট থানার আহাম্মদপুর গ্রামের ২২ জেলের। চরফ্যাসনের দক্ষিণ সাগরে ঝড়ে যাওয়া ২টি  ট্রলারডুবির ৬ দিন পরও নিখোঁজ স্বজনদের কোনো খবর না পাওয়ায় জেলেদের জীবন নিয়ে অজানা আশঙ্কায় জেলে পরিবারগুলোতে এখন শোকের মাতম।
ডুবে যাওয়া ট্রলারে নিখোঁজ জেলে নুরনবী ও সোহরাব-সোমবার সন্ধ্যায় গ্রামে ফিরে এসেছেন। তাদের ফিরে আসার ঘটনা নিখোঁজ থাকা জেলে পরিবারগুলোর শোককে উসকে দিয়েছে।
জানা গেছে, জলিল কোম্পানির এফবি সোনার মদিনা এবং মানিক মাঝির এফবি মানিক ট্রলার গত ১৮জুলাই গভীর সাগরে মাছ ধরতে যায়। দুটি ট্রলারে ৪৮ জন জেলে ছিল। সাগরে উত্তাল ঢেউয়ের তোপে শুক্রবার রাতে এফবি সোনার মদিনা ও এফবি মানিক ট্রলার দুটি ডুবে যায়। ঢেউয়ের তোপে ভেসে যায় সব জেলে।
ঘটনার পরপর বিভিন্ন ট্রলারের সহায়তায় এফবি মানিক ট্রলারের ২৪ জেলে উদ্ধার হয়ে নিজ নিজ বাড়িতে ফিরলেও নিখোঁজ ছিল ২৪ জেলে। তাদের মধ্যে সোমবার সন্ধায় নুরনবী ও সোহরাব বাড়ি ফিরলেও এখনো নিখোঁজ আছেন ট্রলারমাঝি হোসেনসহ ২২ জেলে।
ট্রলারডুবির ৫ দিন পর ঘরে ফেরা জেলে নুর নবী ও সোহরাব জানান, জলিল মাঝির মালিকানাধীন এফবি সোনার মদিনা ট্রলারটি একটু পুরানো ছিল। হঠাৎ সাগর উত্তাল হয়ে উঠে। সাগরে সিগন্যাল উঠেছে-এমনটা নিশ্চিত হয়ে নিকটবর্তী নিরাপদ আশ্রয়ে ফেরার সময় শুক্রবার রাতে ভয়ংকর ঢেউয়ের তোপে তাদের ট্রলার (এফবি সোনার মদিনা) ডুবে যায়। বাংলাদেশ ভারত বর্ডার চালনা এলাকায় সীমানায় ঘটে এই দুর্ঘটনা ঘটে।
একই রাতে ঢেউয়ের তোপে চালনা সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতের কেদুয়াখারী সীমান্তে ঢুকে যায় একই এলাকার অপর একটি ট্রলার। ভারত সীমান্ত থেকে ফেরার পথে সাগরে ভাসতে দেখে নুরনবী ও সোহরাবকে উদ্ধার করে সোমবার সন্ধ্যায় নিজ গ্রামে নিয়ে আসেন ওই ট্রলারের জেলেরা।
ফিরে আসা জেলেদের বাড়িতে গেলে দেখা হয় শোকাহত ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধা আনোয়ারা বেগমের সঙ্গে। শোকস্তব্ধ শক্তিহীন আনোয়ারা বেগম এসেছেন তার নিখোঁজ তিন ছেলে আলমগীর, মালেক এবং আবদুল আলীর খোঁজ নিতে। কিন্ত নিখোঁজ সন্তানদের কোনো খবর না পেয়ে মাটিতেই বসে নির্বাক দৃষ্টিতে আকাশের দিকে চেয়ে থাকেন আনোয়ারা বেগম।
এই বাড়িতে নিখোঁজ স্বামীদের জীবনের অজানা আশঙ্কায় শোকের মাতম করতে দেখা গেছে রাজিয়া, আমিরন ও সুরমাদের।
এফবি সোনার মদিনা ট্রলারের জেলে নুর হোসেন, জাহাঙ্গীর,ফারুক, জাকির, লোকমান, নুরুল ইসলাম, জাফর, নুর হোসেন, আলমগীর মিজি, কবির, রাসেল, ছাদেকসহ নিখোঁজ ২২ জেলের পরিবারের শোকের মাতম গ্রামের আকাশ-বাতাসকেও ভারি করে তুলেছে।

LEAVE A REPLY