আরিফ কর্তৃক প্রতারনার শিকার অসহায় অজুফা

0
498

মুলাদী প্রতিনিধি:
অজুফা (সেনোয়ারা) কে জমি ক্রয় করে দেয়ার কথা বলে দুই লক্ষ টাকা আত্মসাত করেছে প্রতারক আরিফ হোসেন বেপারী (প্রোপাইটর ঃ ইব্রাহিম রেন্ট-এ কার) বাগবাড়ী মাদ্রাসা বাজার, তাজপুর, আশুলিয়া, ঢাকা)। ঢাকা মোহাম্মদপুর থানার আদাবর মেহেদী বাগ ৫ নং গলির অসহায় বাসিন্দা সোনামেয়ার স্ত্রী অজুফা (সেনোয়ারা) কে জমি ক্রয় করে দেওয়ার কথা বলে অনুমান ৮ বছর পুর্বে নগদ পাঁচ লক্ষ টাকা নেয় প্রতারক আরিফ হোসেন আলি বলে জানাগেছে। অজুফা আমাদের প্রতিনিধি কে জানান অনুমান ৮ বছর পূর্বে তাকে বাড়ি করার জন্য জমি ক্রয় করে দেওয়ার কথা বলে অনুমান ৮ বছর পুর্বে নগদ পাঁচ লক্ষ টাকা নেয় প্রতারক আরিফ। জমি ক্রয় করে না দিয়ে বহু ঘোড়াগুরির পরে তিন লক্ষ টাকা ফেরত দিয়ে বলে বাকি টাকা পরে দিবে। বাকি দুই লক্ষ টাকা না দেওয়ায় আরিফ তার গ্রামের বাড়ি বরিশাল জেলার মুলাদি উপজেলার বোয়ালিয়া গ্রামে বসে পাওনা টাকা পরিশোধ করিবে বলে, যাইতে বলিলে অসহায় অজুফা ১৭ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং তারিখ আসিয়া টাকা চাইলে বসতে বলিয়া আরিফ চলিয়া যায়। আরিফের পিতাঃ আদম আলি বেপারী ভাই শাহে আলম বেপারী, শাজাহান বেপারী ও আরিফের মাতা অকথ্য ভাষায় গাল মন্দ করিলে অজুফা স্থানীয় বোয়ালিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে গিয়ে ১৭/১২/২০১৮ ইং তারিখ আরিফ হোসেন সহ ৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে। তদন্ত কেন্দ্রের আই সি মোঃ আউয়াল হোসেন আরিফ কে ডাকিয়া বাদির সামনে উপস্থিত করিলে উভয় পক্ষ স্থানীয় গন্য মান্য ব্যক্তিদের শালিশ মনোনিত করেন। ১০ জানুয়ারি ২০১৯ ইং এর মধ্যে শালিশ কার্য হবে বলিয়া উভয় পক্ষ অঙ্গীকার নামায় স্বাক্ষর করেন। উক্ত তারিখের মধ্যে শালিশিতে না বসিয়া অজুফাকে বিভিন্ন মিথ্যা মামলায় জড়ানো সহ বিবিধ হয়রানির হুমকি দেয় আরিফ সহ তার পরিবারে লোক জন। প্রতারক আরিফের নিকট হইতে পাওনা টাকা ফেরত পাওয়ার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করছে অসহায় অজুফা। প্রতিপক্ষ আরিফের সাথে উল্লেখিত বিষয় জানতে চাইলে তিনি বিভিন্ন কথা বলে এরিয়ে যায়। কুতুব উদ্দিন কাজী বলে প্রতারক আরিফের ১০ বছর পূর্বের আর্থিক অবস্থা ও বর্তমান আর্থিক অবস্থা যথাযথ কর্তৃপক্ষের তদন্ত হলে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হওয়ার ঘটনা প্রকাশ পাবে। স্থানীয় লোক দলিল হাং, কালাম কালু হাং, সহ কয়েক জনে জানান শালীশিতে বসলে উভয় পক্ষের জবান বন্ধিতে মূল ঘটনা প্রকাশ পাবে।

LEAVE A REPLY